Q: ড্রাফট কিভাবে কাটতে হবে?

A: ইন ফেভার অফ The West Bengal Central School Service Commission, পেয়েবল অ্যাট Kolkata.

 

Q: Teacher-in-Chrage রা কি apply করতে পারবেন?

A: টিচার-ইন-চার্জ রা AT হিসেবে অ্যাপ্লাই করতে পারবেন।

 

Q: ম্যানেজিং কমিটি দ্বারা নির্বাচিত শিক্ষকেরা এই সু্যোগ কি পাবেন না?

A: অবশ্যই পাবেন।

 

Q: স্কুল পছন্দ না হলে ড্রাফট টা কি রিফাণ্ড করে নেওয়া যাবে বা ড্রাফটার কি হবে?

A: স্কুল পছন্দ না হলে আপনাকে ওখানেই থেমে যেতে হবে। আবেদন পত্র বা ড্রাফট জমা / পাঠানোর দরকার পড়বে না। ব্যাঙ্কে সামান্য কিছু ফি (সম্ভবতঃ ১০০টাকা) দিয়ে ড্রাফট বাবদ বাকি টাকা ফেরত পেয়ে যাবেন।

 

Q: যেভাবে তারিখ পিছিয়ে যাচ্ছে বাকি তারিখ গুলোর কি হবে?

A: তারিখ এর সঙ্গে দিন হিসেবে কত দিন সময় এর উল্লেখ আছে সেই অনুসারে সবি পিছিয়ে যাবে। তবে ছয়মাস পিছিয়ে গেলে ড্রাফট এর ব্যাপারে নিশ্চয় কিছু ব্যবস্থা নেবেন কমিশণ কর্তৃপক্ষ।

 

Q: ড্রাফটের ভ্যালিডিটি কবে থেকে কতদিন থাকতে হবে?

A: ড্রাফট এর ভ্যালিডিটি ৩০শে এপ্রিল তারিখে যেন অবশ্যই ৩০ দিন থাকে। কারো যদি ৩০ দিনের কম হয়ে যায়, তাকে ভ্যালিডিটি বাড়িয়ে নিতে হবে বা নতুন ড্রাফট কাটতে হবে।

 

Q: কো-এড স্কুলের শিক্ষিকারা কি গার্লস স্কুলে যেতে পারবে বা এর উলটো টা?

A: অবশ্যই। সর্বশেষ খবর অনুযায়ী শিক্ষিকারা কো-এড থেকে গার্লস বা গার্লস থেকে কো-এড স্কুলে যাওয়ার সুযোগ পাবেন। ফর্ম ফিলাপ করার সময় ড্রপ ডাউন লিস্টে দুধরণের স্কুলের নামই পেয়ে যাবেন।